1. admin@bbcnewsbangla.com : admin :
  2. Sadiafrin011210@gmail.com : সাদিয়া আফরিন : সাদিয়া আফরিন
  3. infomvaly@gmail.com : সবুজ দাস : সবুজ দাস
  4. engr.mahadiviruss@gmail.com : Mahadi Hasan : Mahadi Hasan
রবিবার, ২২ নভেম্বর ২০২০, ০৩:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
***পরীক্ষামূলক সম্প্রচার*** বাংলাদেশের সকল যায়গা থেকেই শিক্ষানবিশ সাংবাদিক নেওয়া হচ্ছে, যারা আগ্রহী তারা ছবি, ভোটার আইডি কার্ড, মোবাইল নাম্বার সহ বায়োডাটা পাঠান infomvaly@gmail.com
প্রধান খবর
করোনা ভাইরাস সনাক্তকরণ এর গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট প্রস্তুত। | BBC NEWS BANGLA এবার নুসরাত ফারিয়ার অর্ধনগ্ন ছবি ফাঁস, ভক্তদের তোলপাড় | BBC NEWS BANGLA অভিনেত্রীকে অশ্লীলভাবে ধর্ষণের হুমকি, অতঃপর… | BBC NEWS BANGLA দ্বিতীয় বিয়ে করেও সাবেক স্বামীকে সময় দিচ্ছেন অভিনেত্রী! | BBC NEWS BANGLA রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘ প্রস্তাবের পক্ষে ১৩২ দেশ, ভোট দেয়নি ভারত, বিপক্ষে চীন | BBC NEWS BANGLA সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতা গ্রেফতার | BBC NEWS BANGLA অটোপাস নয়, পরীক্ষা দিতে আগ্রহী শিক্ষার্থীরা | BBC NEWS BANGLA একি হাল অপু-নিরবের! | BBC NEWS BANGLA মানি লন্ডারিং মামলায় গ্রেফতার দেখানো হলো সম্রাটকে | BBC NEWS BANGLA এএসপি আনিসুল করিমের মৃত্যুর ঘটনায় মামলা | BBC NEWS BANGLA রায়হান হত্যা মামলায় এসআই আকবর ৭ দিনের রিমান্ডে | BBC NEWS BANGLA অবৈধ হ্যান্ডসেট বন্ধে ৩০ কোটি টাকায় প্রযুক্তি কিনছে বিটিআরসি | BBC NEWS BANGLA থাইল্যান্ডে সেলিম প্রধানের ‘৭ কোম্পানি’ | BBC NEWS BANGLA পুরুষরা বয়স ধরে রাখতে যা করবেন | BBC NEWS BANGLA উৎসবের মরসুমে সঙ্গীর মনে আলো জ্বালতে যা যা করতেই হবে | BBC NEWS BANGLA আবারও বাড়ছে স্বর্ণের দাম! | BBC NEWS BANGLA জুয়া খেলায় বিপাকে তামান্না! | BBC NEWS BANGLA কমলা হ্যারিসকে নিয়ে ১১ বছর আগে মল্লিকা যা বলেছিলেন | BBC NEWS BANGLA আওয়ামী লীগ জনগণের মন জয় করেই ক্ষমতায় এসেছে : কাদের | BBC NEWS BANGLA রায়হান হত্যা : এসআই আকবর গ্রেফতার | BBC NEWS BANGLA রোহিঙ্গা দম্পতির বাসা থেকে কোটি টাকা উদ্ধার | BBC NEWS BANGLA

উৎসবের মরসুমে সঙ্গীর মনে আলো জ্বালতে যা যা করতেই হবে | BBC NEWS BANGLA

  • সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪ বার পড়া হয়েছে

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সঙ্গী পুরুষ হোক বা নারী, স্বামী-স্ত্রী হোক কিংবা প্রেমিক-প্রেমিকা, উৎসবের মরসুমে তার জন্য বিশেষ কিছু করতে ইচ্ছে না হলে মশাই আপনি প্রেমিকই নন।

এক্কেবারে বেরসিক বা আনরোম্যান্টিক যাকে বলে। মন পেতে সৌধ বানাতে হবে না কিংবা ইউরোপ টুরের টিকিটও নয় (করোনা আবহে যদিও এ কথা মনে আনলেও ‘পাপ’!)। প্রিয় জনকে আপনি যে ভালবাসেন তা মুখে না বললেও কাজের মাধ্যমেই বুঝিয়ে দিতে পারেন সহজেই। উৎসবের মরসুমে ভালবাসার মানুষের মনে আরও একটু ভালবাসার আলো জ্বেলে দিন, দেখবেন নিজেরও কতটা ভাল লাগবে।

আপনার সঙ্গী কোন পেশার সঙ্গে যুক্ত, বা তিনি কী ভালবাসেন, তা আপনিই জানেন। সেই মতোই দীপাবলির আবহেই তাঁর মন ভোলানোর উপায় বেছে নিন। ওয়ার্ক ফ্রম হোমে দুজনেই জেরবার হলে বাড়িতেই ছুটির দিনে স্পা করুন দুজনে। কারণ দুজনেই কাজের জগতে ব্যস্ত। তাই একটু নিরিবিলি প্রয়োজন। চাইলে কাছেপিঠে বেড়িয়ে আসুন। যুগলের দুজন দুই শহরে থাকলে ঠিকানায় আচমকা একটা উপহার পাঠালে সে নিশ্চয়ই খুশিই হবে।

করোনা আবহে সৃষ্টিশালী কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন অনেকেই, ঘষেমেজে তুলছেন পুরনো ভাল লাগা। সঙ্গীর কবিতা লেখার কিংবা বই পড়ার শখ থাকলে তো প্রিয় বইটি সহজেই তুলে দিতে পারেন। অ্যামাজন-সহ একাধিক অনলাইন সাইটে বাংলা বই মেলে সহজেই। দীপাবলির মরসুমে মন জয় করতে পাঞ্জাবি বা শাড়ি, এ ছাড়াও ঘর সাজানোর হরেক জিনিস উপহার দিতে পারেন আপনার সঙ্গীকে।

তবে দামি উপহার মানেই যে বেশি ভালবাসেন এমনটা কিন্তু নয়, একদিন আচমকা মাঝরাতে সুরক্ষাবিধি মেনে লং ড্রাইভ আর তারপর হাতে ধরিয়ে দিন নিজের লেখা চিঠি। সঙ্গী অন্য বাড়িতে থাকলেই বা কী। ডাকযোগে পাঠিয়ে দিয়েই দেখুন না হয়। এ ছাড়াও পোষ্য ভালবাসলে উপহার হিসেবে সেটিও তুলে দিতে পারেন সঙ্গীর হাতে। তবে সে ক্ষেত্রে যত্নবান সঙ্গী থাকাও প্রয়োজন।

আসলে ভালবাসার ক্ষেত্রে শারীরিক দূরত্ব কোনও দূরত্বই নয়। মানসিকভাবে তাঁরা কতটা কাছাকাছি আছেন, তার উপর নির্ভর করে ভালবাসা থাকবে কি থাকবে না। শারীরিক দূরত্বকে মানুষ এখন অতিক্রম করছে প্রযুক্তির সাহায্যে। প্রযুক্তি ভালবাসেন না, এমন মানুষ মেলা দুষ্কর। আইপড, মোবাইল ফোন বা ল্যাপটপও উপহার দিতে পারেন কিন্তু পকেটে টান না পড়লে।

না-ই বা একসঙ্গে খাওয়াদাওয়া হল, পাশাপাশি হাঁটা বা বেড়ানোর আনন্দ না হয় বন্ধই থাকল আরও কিছুদিন, আড্ডা বা ভালবাসার আদানপ্রদান তো হতেই পারে সঙ্গে একটা স্মার্ট ফোন বা ট্যাব থাকলেই।

বয়ঃসন্ধির প্রেমিক-প্রেমিকারা কী করবেন, ছোট বলে কি তারা পিছিয়ে থাকবে ভালবাসার আদানপ্রদানে? মোটেও না। অনলাইনেও কার্ড আর ফুল পাঠানোর ব্যবস্থা তো রয়েইছে। দীপাবলির মাসে সঙ্গীর নেটপ্যাকটা ভরিয়ে দিলেই গালে লাল ছোপ! চিঠি না পাঠাতে পারলে ই-চিঠি তো আছেই, মনের কথা খুলে লিখেই ফেলুন ই-মেলে। এটাই এ মরসুমের সবচেয়ে বড় উপহার হতে পারে বড়দের ক্ষেত্রেও।

সঙ্গী যদি বাড়িতে থাকেন, তাঁর সারাদিনের কাজে আপনিও শরিক হন। আপনার ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’-এর এনার্জি জোগাতে গিয়ে নিজের খেয়াল কি রাখছেন তিনি? বাড়ির কাজ কিন্তু আরও বেড়ে গিয়েছে। গৃহবধূ বলে যে তিনি কাজ করেন না, এমন পিছিয়ে পড়া মানসিকতার বদল ঘটানোর সময় এসেছে। খেয়াল রাখুন এ দিকেও বিশেষভাবে। তাঁর যত্নের জন্য হরেক রকম রিল্যাক্সিং বিউটি প্যাক মিলবে অনলাইনেই। এ ছাড়াও একটা প্রাচীন প্রবাদ আছে, জানেন তো? সঙ্গীর মন জয়ের জন্য পাকস্থলীটিই যথেষ্ট। সারা দিনজুড়ে তাঁর প্রিয় পদগুলি রান্না করে খাওয়ান। সঙ্গী একই শহরে অন্যত্র থাকলেও সুইগি জেনি বা এ জাতীয় অ্যাপের মাধ্যমে সঙ্গীর প্রিয় রান্না করে পাঠাতে পারেন সহজেই।

যাঁরা আলাদা থাকছেন করোনা আবহে। যেতে পারছেন না সঙ্গীর কাছে। মন খারাপ করবেন না। বরং আপনার সঙ্গী করোনা আবহে শরীরচর্চার জন্য কী টার্গেট নিয়েছেন তা নিয়ে কথা সেরে ফেলুন। ফিটনেস-ফ্রিক সঙ্গী হলে তাঁকে ফিটনেস ইকুয়েপমেন্টস উপহার দিন।

সবার কথাই তো হল। কিন্তু উৎসবের মরসুমে ৬০-৭০ পেরনো মানুষগুলি দুজনেই বাড়িতে একা? তাঁরা কী করবেন? বাড়ির পাশেই টুনি মিলবে সহজেই। কারও সাহায্য নিয়ে সাজিয়ে ফেলুন বাড়িটা। আলো ঝলমলে টুনিতে মনটাও অন্যরকম হয়ে উঠবে। দীপাবলির এ মরসুমে অনেকেই সঙ্গীহারাও হয়েছেন। শোক ভুলতে সময় লাগলেও সম্পর্ককে ভুলবেন কেন? আপনার সঙ্গীর পছন্দমতো রান্না করে নিজেই খান। তাঁর পছন্দমতো সেজেই ছবি তুলুন দেখি এক বার। প্রতিবেশীর সঙ্গে কথা বলুন। হেল্পলাইনে কথা বলুন। উৎসবের মরসুমে সবথেকে বড় উপহার পাশের জনের মন ভাল রাখা। শুধু তাঁর প্রতিটি ইতিবাচক কাজে পাশে থেকেই দেখুন, সব ঝড়ঝাপটা সামলে নেবেন তিনি সহজেই। উৎসবের আলো, ভালবাসার আলোয় ঝলমল করে উঠুন। তবেই তো অবসাদের আলো ঘুচে দীপালিকায় আলো জ্বালা সার্থক।

সূত্রঃ প্রাইম নিউজ BD

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

Categories

© BBCNewsbangla All rights reserved © 2020. প্রবেশকরুন
Theme Customized By BreakingNews