1. admin@bbcnewsbangla.com : admin :
  2. Sadiafrin011210@gmail.com : সাদিয়া আফরিন : সাদিয়া আফরিন
  3. infomvaly@gmail.com : সবুজ দাস : সবুজ দাস
  4. engr.mahadiviruss@gmail.com : Mahadi Hasan : Mahadi Hasan
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
***পরীক্ষামূলক সম্প্রচার*** বাংলাদেশের সকল যায়গা থেকেই শিক্ষানবিশ সাংবাদিক নেওয়া হচ্ছে, যারা আগ্রহী তারা ছবি, ভোটার আইডি কার্ড, মোবাইল নাম্বার সহ বায়োডাটা পাঠান infomvaly@gmail.com
প্রধান খবর
করোনা ভাইরাস সনাক্তকরণ এর গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট প্রস্তুত। | BBC NEWS BANGLA শেষ হলো ৫৫ পৌরসভার ভোট, চলছে গণনা | BBC NEWS BANGLA বুধবার দেশজুড়ে বিএনপির বিক্ষোভ | BBC NEWS BANGLA সব আন্দোলন-সংগ্রামে আনসার-ভিডিপি অংশ নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী | BBC NEWS BANGLA কেন্দ্রে গিয়ে করোনা টিকার নিবন্ধন আপাতত বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী | BBC NEWS BANGLA জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে বিএনপির দুই দিনের কর্মসূচী ঘোষণা | BBC NEWS BANGLA ব্যাংকের লভ্যাংশ ঘোষণার নতুন নীতিমালা | BBC NEWS BANGLA প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে যা বললেন মিয়া খলিফা | BBC NEWS BANGLA যেসব কথায় মেয়েদের ভালোবাসা গভীর হয় | BBC NEWS BANGLA অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জয়ে শুরু জোকোভিচের | BBC NEWS BANGLA সুয়ারেজের অবিশ্বাস্য রেকর্ড | BBC NEWS BANGLA ডিজে নেহার খদ্দেররা সব ধনাঢ্য ব্যবসায়ী! | BBC NEWS BANGLA রিমান্ডে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন ডিজে নেহা | BBC NEWS BANGLA জার্মানিতে টিকা নেওয়ার পরও করোনা আক্রান্ত | BBC NEWS BANGLA মিয়ানমারের সঙ্গে সব ধরনের সম্পর্ক স্থগিত করল নিউজিল্যান্ড | BBC NEWS BANGLA কিশোরগঞ্জ কারাগারে আসামিকে পিটিয়ে হত্যা | BBC NEWS BANGLA বিমসটেকভুক্ত দেশগুলোকে একযোগে কাজ করার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর | BBC NEWS BANGLA | BBC NEWS BANGLA | BBC NEWS BANGLA ৪০ বছর বয়সীরাও টিকার নিবন্ধন করতে পারবেন | BBC NEWS BANGLA খালেদা জিয়াকে শাস্তির নামে অপমান করা হয়েছে: গয়েশ্বর | BBC NEWS BANGLA টিকা নেয়ার পরও মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর | BBC NEWS BANGLA

ভারতের তুলনায় চিন-পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা বেশি | BBC NEWS BANGLA

  • সোমবার, ১৫ জুন, ২০২০
  • ৫৯ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা : ভারতের তুলনায় চিন এবং পাকিস্তানের হাতে অধিক সংখ্যক পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। ইয়ারবুক ২০২০-তে এমন তথ্য জানিযেছে ‘স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট’ (সিপ্রি)। যে সংস্থা দ্বন্দ্ব, অস্ত্র, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ এবং নিরস্ত্রীকরণের মতো বিষয়গুলি নিয়ে গবেষণা করে।

থিঙ্কট্যাঙ্কের তরফে জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত চিনের হাতে ৩২০ টি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। সেখানে পাকিস্তান এবং ভারতের ভাণ্ডারে পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা যথাক্রমে ১৬০ এবং ১৫০ টি। গত বছরও অবশ্য পরমাণু অস্ত্র সংখ্যার নিরিখে দু’দেশের থেকে পিছিয়ে ছিল ভারত। তখন চিন, পাকিস্তান এবং ভারতের কাছে যথাক্রমে ২৯০, ১৫০-১৬০ এবং ১৩০-১৪০ টি পরমাণু অস্ত্র ছিল। তিন দেশকে একই পর্যায়ে রেখেছিল সিপ্রি।

তবে বর্তমানে সীমান্ত বিবাদের মধ্যে এই রিপোর্টের তাৎপর্য ঢের বেশি বলে মত বিশেষজ্ঞদের। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর পূর্ব লাদাখে ইতিমধ্যে নয়াদিল্লি এবং বেজিংয়ের মধ্যে উত্তেজনা চরমে উঠেছে। এছাড়াও লাদাখ থেকে উত্তরাখণ্ড ও সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশের সীমান্তে দু’দেশেরই সামরিক শক্তি বৃদ্ধির ছবি পরিলক্ষিত হয়েছে।

সিপ্রির তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নিজেদের পরমাণু অস্ত্রসম্ভারের ‘উল্লেখ্যযোগ্য আধুনিকীকরণ’ করছে চিন। নতুন স্থল এবং সমুদ্র-নির্ভর ক্ষেপণাস্ত্র এবং পরমাণুধর যুদ্ধবিমানের মাধ্যমে ‘প্রথমবার তথাকথিত পরমাণু ত্রয়ী’ তৈরি করছে বেজিং। একইভাবে ভারত এবং পাকিস্তানও নিজেদের পরমাণু ভাণ্ডার বাড়াচ্ছে। সিপ্রির তরফে বলা হয়েছে, ‘ভারত এবং পাকিস্তান ধীরে ধীরে নিজেদের পরমাণু সম্ভারের আয়তন এবং বৈচিত্র বাড়াচ্ছে।’

সামগ্রিকভাবে অবশ্য গত বছর সারা বিশ্বে পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা কমেছে। যা অস্ত্র আছে, সেগুলির আধুনিকীররণের কাজ চালাচ্ছে সব পরমাণু শক্তিধর দেশ। থিঙ্কট্যাঙ্কের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, রাশিয়া এবং আমেরিকার কাছে যথাক্রমে ৬,৩৭৫ এবং ৫,৮০০ টি অস্ত্র রয়েছে। যা সারা বিশ্বের পরমাণু অস্ত্রের ৯০ শতাংশেরও বেশি। সবমিলিয়ে বিশ্বের ন’টি পরমাণু শক্তিধর দেশে (রাশিয়া, আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, চিন, ভারত, পাকিস্তান, ইজরায়েল এবং উত্তর কোরিয়া) ১৩,৪০০-র মতো পরমাণু অস্ত্র রয়েছে।

সিপ্রির তরফে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘২০১৯ সালের গোড়ার দিকে সিপ্রির তরফে এই দেশগুলির কাছে ১৩,৮৬৫ টি পরমাণু অস্ত্র আছে বলে জানানো হয়েছিল। তা এখন কমেছে। মোটমুটি ৩,৭২০ টি পরমাণু অস্ত্র বিভিন্ন সক্রিয় বাহিনীর কাছে রয়েছে এবং প্রায় ১,৮০০ টি অস্ত্রকে হাই অ্যালার্টে রাখা হয়েছে।

একইসঙ্গে পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডারের তথ্য জানানো নিয়ে যে কম স্বচ্ছতা রয়েছে, তাও তুলে ধরেছে সিপ্রি। তাদের তরফে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অতীতের তুলনায় চিন মাঝেমধ্যেই জনসমক্ষে পরমাণু ভাণ্ডার দেখায়। তবে অস্ত্রের সংখ্যা বা ভবিষ্যতের পরিকল্পনা নিয়ে খুব কম তথ্য সামনে আনে। ভারত এবং পাকিস্তান সরকার নিজেদের কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে মুখ খোলে। কিন্তু তাদের অবস্থা বা অস্ত্রের সংখ্যা নিয়ে কোনও তথ্য’দেয় না।’

সুত্রঃ প্রাইম নিউজ

ভালো লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর

Categories

© BBCNewsbangla All rights reserved © 2020. প্রবেশকরুন
Theme Customized By BreakingNews